মেহেরপুরে সমাজসেবা উপপরিচালকের বিচারের দাবিতে সাংবাদিকরা একাট্টা

মেহেরপুরে সমাজসেবা উপপরিচালকের বিচারের দাবিতে সাংবাদিকরা একাট্টা

শেয়ার করুন

মেহেরপুরে ডিবিসি প্রতিনিধি আবু আক্তার করণ ও বাংলাদেশ রয়টার্স প্রতিনিধি জাকির হোসেনকে মারধর ও ক্যামেরা ভাংচুর করায় সমাজ সেবা অধিদপ্তরের উপপরিচালক আব্দুল কাদেরসহ সংশ্লিষ্টদের বিচারের দাবিতে পথসভা করেছে সাংবাদিকরা।

আজ সোমবার সকালে মেহেরপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে সড়কে মেহেরপুরের সাংবাদিক সমাজ ব্যানারে সাংবাদিকরা সপ্তাহ ব্যাপী কর্মসূচীর অংশ হিসেবে প্রথম দিনের কর্মসূচী পালন করে।

মেহেরপুর সাংবাদিক সমাজের আহবায়ক ও সিনিয়র সাংবাদিক রুহুল কুদ্দুস টিটোর সভাপতিত্বে সাংবাদিকদের মধ্যে বক্তব্যে দেন ইত্তেফাক প্রতিনিধি মাহাবুব চান্দু, দেশ রুপান্তর প্রতিনিধি তুহিন আরন্য, বিটিভি প্রতিনিধি আলামিন হোসেন, কালের কণ্ঠ প্রতিনিধি ইয়াদুল মোমিন, এসএ টিভি প্রতিনিধি ফজলুল হক মন্টু, মোহনা টিভির প্রতিনিধি ফারুক আহমেদ,মাইটিভি প্রতিনিধি মাহবুব আলম,সাংবাদিক এম এন পাভেল,লিটন মাহমুদ,মাসুদ রানা ইজাজ উদ্দিন ছোটন,রাকিবুল ইসলাম কবি, আতিক স্বপন প্রমুখ।

পথসভায় আহবায়ক রুহুল কুদ্দুস টিটো বলেন, ঘটনার দিন জেলা প্রশাসক সাংবাদিক নের্তৃবৃন্দদের নিয়ে তাঁর সম্মেলন কক্ষে মতবিনিময় করে দ্রুত এ ঘটনার ব্যবস্থা করার জন্য তদন্ত কমিটি করেছিলেন। কিন্তু ঘটনার আটদিন পার হলেও তদন্ত কমিটি কোন প্রতিবেদন দেননি এবং কার্যকর কোন ব্যবস্থা গ্রহন করেননি। যে কারণে আমরা বাধ্য হয়ে ৭দিনের কর্মসূচী দিয়েছি। আপনি এর মধ্যে ওই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিবেন। না হলে আমাদের এ কর্মসূচী চলতে থাকবে। একপর্যায়ে জেলা প্রশাসনসহ মেহেরপুরের সরকারি দপ্তরের সকল সংবাদ বর্জন করাসহ কঠোর আন্দোলন করা হবে।

দৈনিক দেশ প্রতিনিধি মুজাহিদ মুন্নার সঞ্চালনায় পথসভায় মেহেরপুরে বিভিন্ন গণমাধ্যমে কর্মরত সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত ৮ নভেম্বর মেহেরপুর সমাজ সেবা কার্যালয়ে তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে সমাজ সেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আব্দুল কাদের ও তার সহযোগীরা ডিবিসি প্রতিনিধি আবু আক্তার করণ ও বিডি রয়টার্স প্রতিনিধি জাকির হোসেনকে মারধর করেন এবং ক্যামেরা ভাংচুর করেন। এ ঘটনায় ওই দিনই মেহেরপুর সদর থানায় চার জনের নাম উল্লেখ সহ অজ্ঞাত ৮/৯ জনের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়।

মেহেরপুর জেলা