গাংনীতে মেম্বারের বোনকে নিতে এসে ডাক্তার ছেলে আটক

গাংনীতে মেম্বারের বোনকে নিতে এসে ডাক্তার ছেলে আটক

শেয়ার করুন

মেহেরপুরের গাংনীতে প্রেমের টানে ইউপি সদস্যের বোনকে নিতে এসে ডাক্তারের ছেলে আটক।

বুধবার দিবাগত গভীর রাতে ব্যাটারী চালিত অটোরিকশা নিয়ে দেবীপুর বাজার এলাকায় মেম্বারের বোন সপ্তম শ্রেণী পড়ুয়া ছাত্রীর জন্য অপেক্ষায় থাকে উপজেলার ভরাট গ্রামের মুকুলের ছেলে সজিব(২০) ও জালাল ডাক্তারের ছেলে আব্দুল্লাহ(১৯)। তাকে নিয়ে অটো যোগে পালানোর সময় স্থানীয়রা তাদের আটক করে।

স্থানীয়রা জানান, মেম্বারের বোন ও সজিবের সাথে প্রেমের সম্পর্ক আছে। কিছু দিন আগে তারা বাড়ী থেকে পালিয়ে যায়। উভয়ের বাড়ীর লোকজন অনেক খোঁজা-খোজি করে উদ্ধার করে। স্থানীয় ভাবে শালিস এ বিষয় টি মিমাংসা করা হয়। এবং শালিসে বলা হয় ছেলে-মেয়ে কেউ কারো সাথে কোন যোগাযোগ রাখবেনা। কিন্তু আজ রাতে সজিব ও তার বন্ধু মেম্বারের বোনকে নিতে আসলে স্থানীয় লোকজন আব্দুল্লাহকে ধরতে পারলেও প্রেমিক সজিব পালিয়ে যায়। পরে বামন্দী পুলিশ ক্যাম্পকে ফোন দিলে তাকে উদ্ধার করে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়।

এ বিষয়ে ইউপি সদস্য আহসান হাবীব হীরক জানান, আমি নিজে আটক করি। স্থানীয় ছেলেপেলে তাকে মারধর করে।

ক্যাম্প ইনচার্জ এস আই হাবিব শরিফ জানান, গভির রাতে স্থানীয় মেম্বার আমাকে ফোন দিয়ে বলে, একটি ছেলেকে ধরে এলাকার লোকজন মারধোর করছে। ঘটানা শুনে আমি ছুটে যায় এবং আব্দুল্লাহ কে উদ্ধার করে, পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়। উভয় পক্ষ অভিযোগ না করাই, বৃহস্প্রতিবার রাত ১ টার দিকে আব্দুল্লাহ কে তার পরিবারের কাছে বুঝায় দিয়েছি।

গাংনী উপজেলা