গাংনীতে কবরস্থানের রাস্তা নিয়ে মিথ্যা মামলায় হয়রানি বন্ধে গ্রামবাসীর মানববন্ধন

গাংনীতে কবরস্থানের রাস্তা নিয়ে মিথ্যা মামলায় হয়রানি বন্ধে গ্রামবাসীর মানববন্ধন

শেয়ার করুন

মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার কড়ুইগ্রাছি মিথ্যা মামলায় হয়রানির প্রতিবাদে গ্রামবাসী মানববন্ধন করেছেন। বৃহস্পতিবার বিকেলে গ্রামের সামাজিক কবরস্থানের সড়কে মানববন্ধন করেন। মানববন্ধনের বক্তারা জানান, গ্রামের কয়েকজনকে মিথ্যা মামলায় হয়রানি করছে এমন অভিযোগ উত্থাপন করে অনতিবিলম্বে মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান।
মানববন্ধনে গ্রামের বয়োবৃদ্ধ মোশারফ হোসেন মন্ডলের নেতৃত্বে বক্তব্য রাখেন কবরস্থান কমিটির সাধারণ সম্পাদক সুমন আলী, সদ্য জমিদাতা হানজালা, ইসরাফিল হুসাইন উজ্জল, ফজলুল হক রবিউল ইসলাম।
বক্তরা বলেন, গ্রামবাসী সকলের জন্যই কবরস্থান উন্মুক্ত। কবরস্থানের প্রবেশ মুখে সামান্য একটু জমির কারণে রাস্তা বন্ধ ছিল। সাম্প্রতিক সময়ে ওই জায়গার মালিক হানজালা আড়াই শতক জমি কবরস্থানের নামে দান করেন। তখন থেকে সংস্কারের জন্য রাস্তায় মাটি ফেলা শুরু হয়। গ্রামের মানুষের স্বার্থে প্রায় সকলে মিলে কবরস্থানের উন্নয়নে মনোনিবেশ করেন। কাজ চলমান অবস্থায় গ্রামের গোলাম জাকারিয়া ও গোলাম রসুল আড়াই শতক জমি নিজেদের দাবি করে জোরপূর্বক দখলের অভিযোগ তুলে মেহেরপুর আদালতে ১৪৫ ধারায় একটি পিটিশন দায়ের করেন। যা তদন্তাধীন রয়েছে। এখানে বিবাদি করা হয়েছে কবরস্থানের উন্নয়নের দায়িত্বে থাকা গ্রামের ৮ জনকে।
বক্তারা বলেন, হানজালা তার ক্রয় করা সম্পত্তি দান করেছেন। এখানে কোন প্রকার জটিলতা নেই। গোলাম জাকারিয়া ও গোলাম রসুল পক্ষ চায় না যে গ্রামে কবরস্থানের হোক কিংবা রাস্তা হোক। তারা ব্যক্তি স্বার্থে গ্রামের মানুষের বৃহত্তর স্বার্থের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে। তাদের ক্ষমতার জোরে গ্রামের মানুষকে এ মামলায় হয়রানি করে যাচ্ছে। একদিকে গ্রামের মানুষ হয়রানি অন্য দিকে অন্য কোন মামলায় গ্রেফতারের হুমকিতে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। তাই মিথ্যা মামলায় রেহাই পাওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তারা।
মানববন্ধনে গ্রামে নারী, শিশুসহ বিভিন্ন বয়সী মানুষ অংশ গ্রহণ করেন।

গাংনী উপজেলা